শুরু হলো ৭ দিনের কঠোর লকডাউন, সবারই আছে ‘অজুহাত’

1387
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধ আজ বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে সাতদিনের সরকারি বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। এই বিধিনিষেধ থাকবে আগামী ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত।

সরকারি বিধিনিষেধ এবং মানুষের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে মাঠে টহলে আছে সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিজিবি, র‍্যাব, কোস্টগার্ড ও আনসার সদস্যরা।

এ সময়ে জরুরি সেবা দেয়া দফতর-সংস্থা ছাড়া সরকারি-বেসররকারি অফিস, যন্ত্রচালিত যানবাহন, শপিংমল দোকানপাট বন্ধ থাকবে। খোলা থাকবে শিল্প-কারখানা। জনসমাবেশ হয় এমন কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে না এই সময়ে।

মহল্লার ভেতর এবং সবজি ও মাছের বাজারগুলোতে সরকারের এই নির্দেশনা খুব একটা মানতে দেখা যাচ্ছে না। মানুষ অপ্রয়োজনেই ঘর থেকে বের হচ্ছে। বিভিন্ন বাজারে গাদাগাদি করে দাঁড়িয়ে বাজার করছে। এমনকি মাস্কও ব্যবহার করছেন না অনেকে।

বৃহস্পতিবার সকালে রামপুরা মোল্লাবাড়ী বাজারে গিয়ে দেখা যায়, মানুষ গিজগিজ করছে। মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা তো দূরের কথা অনেকে মাস্কও পরছে না। আবার যারা বাজারে যাচ্ছেন তাদের সবাই বাজার করছেন না। অকারণেই বাজারের ভেতর ও রাস্তায় ঘোরাঘুরি করছেন।

বাজারটিতে মাস্ক না পরে সবজি কিনতে আসা আলেয়া নামের একজন বলেন, ‘পরিবারের জন্য বাজার করতে এসেছি। বাজার না করলে খাব কী?’

মাস্ক না পরার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘শুধু আমি একা না, অনেকেই দেখেন মাস্ক পরেনি। আর মাস্ক পরে কী হবে? আল্লাহ যার করোনা দেবে ঘরের মধ্যে বসে থাকলেও দেবে।’

শেয়ার করতে ক্লিক করুন