পিতার সম্পত্তির দখল ফিরে পেতে কুমিল্লার ৭১ বয়সী এক বৃদ্ধার আকুতি

1290
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
জালিয়াতি করে ভূয়া ওয়ারিশানামার মাধ্যমে পিতার সম্পত্তি থেকে বোনদের বঞ্চিত করেছেন তিন ভাই। ভাইদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেছেন ৭১ বয়সী এক বৃদ্ধা। গত ১৮ জুলাই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবরে লিখিত আবেদনে কুমিল্লার মেঘনা থানার মানিকাচর ইউনিয়নের শিকিরগাঁও গ্রামের বৃদ্ধা মোছাঃ নূরজাহান বেগম পিতার সম্পত্তির দখল পাওয়ার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী এবং আইজিপির হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

লিখিত আবেদনে তিনি বলেন, তার পিতা মরহুম আব্দুল গফুর ১৯৬৯ সালের ৬ মে তাদের তিন ভাই ও তিন বোনকে রেখে মৃত্যুবরণ করেন। পিতার এক বছর পূর্বেই মা মারা যান। তার ভাইয়েরা তিন বোনকে বাদ দিয়ে জালিয়াতি করে ভূয়া ওয়ারিশানামার মাধ্যমে তিন ভাইয়ের নামে বিএস খতিয়ান তৈরি করেন। তিনি সবার বড় হওয়ায় বাবা মায়ের মৃত্যুর পর মানুষের বাড়ি ও হোটেলে রান্নার কাজ করে ভাই-বোনদেরকে বড় করেছেন। পরবর্তীতে টাকা ধার করে দুই ভাইকে কুয়েত পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। বিদেশ গিয়ে ভাইয়েরা তাকে ভুলে যান এবং সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করেন।

বিষয়টি বিভিন্ন বিচার-শালিশের মাধ্যমে সমাধান না পেয়ে মেঘনা থানার দ্বারস্থ হলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, এলাকার চেয়ারম্যান-মেম্বার তাকে যেটুকু পিতার সম্পত্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত দেয়, তিনি তা মেনে নিয়ে এনজিও থেকে ঋন নিয়ে টিন ও কাঠ দিয়ে একটি ঘর তুলতে শুরু করেন। যেহেতু তার ভাইয়েরা বর্তমানে কুয়েত প্রবাসী, তাই তাদের পক্ষে তাদের শ্বশুর বাড়ির লোকজনেরা এসে নির্মাণাধীন ঘর ভেঙ্গে দেয় এবং তাকেসহ তার মেয়ে ও মেয়ের জামাইকে মারধর করে রক্তাক্ত করে।

এব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে কোন অভিযোগ গ্রহণ করা হয়নি। পরবর্তীতে পুলিশও তাদেরকে ঘর তুলতে নিষেধ করে এবং বিভিন্ন মিথ্যা মামলার ভয় দেখায় বলে লিখিত অভিযোগে বলা হয়। মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও কোন সমাধান না পেয়ে পিতার সম্পত্তির অধিকার ফিরে পেতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন