কঠোর লকডাউনেও শিমুলিয়া ঘাটে মানুষের ঢল

975
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

লকডাউনের বিধিনিষেধের পঞ্চম দিনে ফেরিতে যাত্রী ও ব্যক্তিগত গাড়ি পারাপার হচ্ছে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে।

মঙ্গলবারও (২৭ জুলাই) সকাল থেকেই ফেরি ঘাটে এই চিত্র দেখা যায়। এদিকে চলমান লকডাউন বাস্তবায়ন ও ফেরিতে যাত্রী চলাচল নিয়ন্ত্রণে ঘাটের অভিমুখে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। তবে তা অতিক্রম করতে যাত্রীরা নানা অজুহাত দেখাচ্ছেন।

ঘাট এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, মঙ্গলার (২৭ জুলাই) সকাল থেকেই বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়া ঘাটে আসা প্রতিটি ফেরিতে যানবাহনের পাশাপাশি যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। প্রতিটি ফেরিতেই ঢাকামুখী মানুষের ঢল। শিমুলিয়া হয়ে বাংলাবাজার যাচ্ছেন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলগামী যাত্রীরা। তবে ফেরিতে দক্ষিণবঙ্গগামী যাত্রীদের চেয়ে ঢাকামুখী মানুষের ভিড় বেশি। অন্যদিকে বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়াঘাটে আসা ঢাকামুখী যাত্রীরা গাড়ি না পেয়ে পায়ে হেঁটেই গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।

ঢাকাগামী যাত্রী গোলাম মোস্তফা বলেন, জীবনের প্রয়োজনে লকডাউন না মেনে ঢাকায় যাচ্ছি। সারাদিন ঘরে বসে থাকলে তো আর পেটে ভাত যাবে না। বেঁচে থাকার জন্য এত কষ্ট করছি।

অভিমান করে আরেক যাত্রী সারুয়ার আহমেদ বলেন, ‘ঈদের ছুটিতে বাড়িতে গিয়েছিলাম। দুই দিন পর থেকেই ঘরে খাবার নেই। এরপরেও কষ্ট করে বাড়িতে ছিলাম। আমি বাড়িতে বসে থাকলে পরিবার না খেয়ে থাকবে।’

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. ফয়সাল বলেন, শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ৭টি ফেরি চলাচল করছে। জরুরি ও লকডাউনের আওতার বাইরে থাকা যানবাহন পারাপারে এসব ফেরি সচল রাখা হয়েছে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন