দশ প্রকল্পের একনেক বৈঠক শুরু

1255
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

এক মাস পর জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠক শুরু হয়েছে। আজকের সভায় ১০টি প্রকল্প অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হবে। প্রকল্পগুলোর মোট ব্যয় ধরা হয়েছে দুই হাজার ৬০৯ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

একনেক কার্যপত্র থেকে এসব তথ্য জানা যায়। এর আগে ২২ জুন সর্বশেষ একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, বুধবার (২৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় একনেক বৈঠক শুরু হয়। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষের সংগে যুক্ত হয়ে বৈঠকে সভাপতিত্ব করছেন একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

৩. পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ‘অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় বাংলাদেশ চ্যান্সারি ভবন নির্মাণ’ প্রকল্প অনুমোদনের জন্য তোলা হচ্ছে। ১৪৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে ক্যানবেরায় বাংলাদেশ হাইকমিশন।

৪. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ‘ইনস্টিটিউট অব টিস্যু ব্যাংকিং অ্যান্ড বায়োমেটেরিয়াল রিসার্চের সেবা ও গবেষণা সুবিধাদির আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ’ প্রকল্প একনেকে উপস্থাপন করা হচ্ছে। ১৭৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন।

৫. মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ‘জেলাভিত্তিক মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ (৬৪ জেলা)’ তৃতীয় সংশোধিত প্রকল্প অনুমোদনের পর ১১৮ কোটি ৭৯ লাখ টাকায় ২০২৩ সালে জুনে এটি বাস্তবায়ন করবে জাতীয় মহিলা সংস্থা।

৬. স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্ণাঙ্গ শিশু কার্ডিওলজি ও শিশু কার্ডিয়াক সার্জারি ইউনিট স্থাপন’ প্রকল্পটি অনুমোদনের জন্য একনেক বৈঠকে তোলা হচ্ছে। ৭২ কোটি টাকায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।

৭. স্থানীয় সরকার বিভাগের ‘দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনর্নির্মাণ বা পুনর্বাসন’ প্রকল্পটি প্রথম সংশোধনের জন্য একনেকে তোলা হবে। দুই হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি)।
৮. ‘পদ্মা বহুমুখী সেতুর ভাটিতে মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং ও টঙ্গীবাড়ী উপজেলাধীন বিভিন্ন স্থানে পদ্মা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ’ প্রকল্পটি পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সভায় উপস্থাপন করা হবে। ৪৪৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি অনুমোদনের পর বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো)।

৯. প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ‘প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের পুনঃ একত্রীকরণের লক্ষ্যে অনানুষ্ঠানিক খাতে কর্মসংস্থান সৃজনে সহায়ক’ প্রকল্পটি উপস্থাপন করা হচ্ছে। ৪২৭ কোটি ৩০ লাখ টাকার প্রকল্পটি অনুমোদনের পর বাস্তবায়ন করবে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড।

১০. শিল্প মন্ত্রণালয়ের ‘বিসিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরী, ঠাকুরগাঁও’ প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদন পেলে ৯৮ কোটি ৬১ লাখ টাকায় বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)।

বিভি/এওয়াইএইচ

শেয়ার করতে ক্লিক করুন