আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে: বিদিশা

1350
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এইচ এরশাদ পুত্র এরিক ঘোষিত জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও বিদিশা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বিদিশা এরশাদ বলেছেন, জনগনের খাদ্য, চিকিৎসা, বাসস্থান নিশ্চিত করা যেমন সরকারের দায়িত্ব। ঠিক তেমনিভাবে সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার জন্য রাত-দিন কাজ করে যাওয়া আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদেরও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে এবং সচেতন করতে আমাদের কাজ করতে হবে। কারন তাঁরা এই পরিস্থিতিতে সম্মুখ সারীর যোদ্ধা।

বৃহষ্পতিবার রাজধানীতে কর্তব্যরত আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মাঝে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণকালে একথা বলেন তিনি। মহামারী করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার রুপ নেওয়ায় জনগণের জান ও মালের নিরাপত্তায় নিয়োজিত রাজধানীর আইন- শৃঙ্খলা বাহিনী তথা পুলিশ সদস্যদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় রাখার ইচ্ছে নিয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশান-১, গুলশান- ২ ও বারিধারাস্হ বিভিন্ন পুলিশ ক্যাম্প ও বক্সে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়।

এ সময় পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাষ্ট-এর চেয়ারম্যান কাজী মোঃ মামুনুর রশীদ বলেন, খাদ্য সহায়তা সামগ্রীসহ সকল সম্মুখ সারীর যোদ্ধা তথা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গণমাধ্যম কর্মীদের মাঝেও নিরাপত্তা জনিত মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ কার্যক্রম চলমান থাকবে ইনশাআল্লাহ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিদিশা ফাউন্ডেশনের মহাসচিব এডভোকেট কাজী রুবায়েত হাসান, নবীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টি সভাপতি এম, এ, জাহের ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। রাতের আঁধারে অসহায় ক্ষুদার্তদের মাঝে এরশাদ ট্রাষ্ট: মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবের কারণে সারা পৃথিবী যখন নিস্তব্ধ, নিশ্চিত মৃর্ত্যুর মিছিল চলছে। বাংলাদেশও তাঁর ব্যতিক্রম নয়, বেড়ে যাচ্ছে আক্রান্তের ও মৃত্যুর সংখ্যা। দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে খাবারের সংকট। আর এই সংকটে নাকাল ঢাকাবাসীর পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতার ঘোষণা দিয়ে ছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি পল্লীবন্ধু এরশাদের গড়া হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাষ্ট। সেই ধারাবাহিকতায় বুধবার রাতে রাজধানীর হাইকোর্ট মাজার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সরজমিনে গিয়ে রাতের আঁধারে ক্ষুদার্ত মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার পোঁছে দেন বিদিশা এরশাদ।

খাদ্য বিতরণকালে বিদিশা এরশাদ বলেন, বৈশ্বিক এই মহামারীর কারণে মানুষ এখন কর্মহীন হয়ে পড়েছে, অনেকে না খেয়ে থাকলেও লজ্জায় কারো কাছে কিছু চাইতেও পারে না, রাতের বেলায় ঢাকায় বাস করা মানুষ গুলো কতটা অসহায় ভাবে খাদ্য কষ্ট নিয়ে ঘুমাতে যায় তা একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে গনকল্যানে কাজ করতে গিয়ে দেখেছি। রাজনৈতিক নেতাদের কর্মটা আসলে কোন লক্ষ্য নিয়ে হওয়া উচিৎ তাঁর জন্য নতুন করে হয়তো রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের বিশ্লেষণ করে বলা দরকার । নইলে দিন দিন রাজনীতি তাঁর কাঙ্ক্ষিত গতিপথ থেকে ছিটকে পড়বে। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাস্টেও পক্ষ থেকে করোনা পরিস্থিতিতে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিন এর অসহায় কর্মহীন মানুষের জন্য খাদ্য সহায়তা সামগ্রী বিতরণের অংশ হিসেবে রাতে রাজধানীতে রান্না করা খাবার বিতরন কালে জাতীয় পার্টি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ট্রাষ্টের চেয়ারম্যান কাজী মোঃ মামুনুর রশীদ বলেন, আমরা ঘোষণা দিয়ে কিন্তু বসে থাকিনি গণমানুষের দুর্ভোগ লাঘবে খাদ্য সহায়তা সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রমের পাশাপাশি সারাদেশ থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে আমাদের নিকট পাঠানো আবেদন গুলো নিয়ে কাজ করা টিমের পরামর্শ নিয়ে জাতীয় পার্টির তৃনমুল নেতাকর্মীদের মধ্যে অতি অসুস্থ ও সংসার পরিচালনা করতে দুঃসাধ্য হয়ে যাওয়াদের জন্যও সহযোগিতা করার একটা ব্যবস্থা ইতিমধ্যেই গৃহীত হয়েছে। যার বাস্তবতা অচিরেই দেশবাসী সহ জাতীয় পার্টির তৃনমুল নেতাকর্মীরা দেখতে পাবে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতি যতদিন থাকবে ততদিন আমরা সাধ্যমত খাবারের ব্যবস্থা করে যাবো ইনশাআল্লাহ।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন