সেপ্টেম্বরেই বিশ্ববিদ্যালয় খোলার লক্ষ্য ইউজিসির

1219
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

সেপ্টম্বরে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন। এরই মধ্যে টিকার জন্য নিবন্ধন করা শিক্ষার্থীদের ৮০ ভাগ করোনার টিকা পেয়ে গেছে। বাকি শিক্ষার্থীদেরও তালিকা পাঠানো হচ্ছে। টিকা দেয়া সম্পন্ন হলেই খুলে দেয়া হবে বিশ্ববিদ্যালয়।

দেশে পাবলিক এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ৭ লাখের মতো। জুলাই মাসের প্রথম থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিকা দেয়া শুরু হয়। এরপর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরও টিকা দেয়া শুরু হয়।

শিক্ষার্থীদের অনেকেই টিকা নিয়েছেন। আবার অনেকে জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকার কারণে নিতে পারছেন না। এছাড়া এরই মধ্যে শিক্ষকদের বেশিরভাগই টিকা নেয়েছেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষক সংগঠনের নেতারা।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সচিব ফেরদৌস জামান বলেন, এখন পর্যন্ত দেড় লাখের মতো শিক্ষার্থী টিকার জন্য নিবন্ধন করেছে। তাদের ৮০ ভাগ টিকা নিয়েছে। প্রতিদিনই তালিকা পাঠানো হচ্ছে। বাকিদের টিকাও দ্রুত দেয়া হবে। সেই সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র যাতে শিক্ষার্থীরা দ্রুত পান সেজন্য নির্বাচন কমিশনকে বলা হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৯ লাখ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ৭ কলেজে শিক্ষার্থী আড়াই লাখ। এদের সবাই টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করেছে ইউজিসি। তবে, শিক্ষার্থীদের অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি মাস্ক পরিধান করা এবং হাত ধোয়ার মতো বিধিগুলো অনুসরণ করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত বছর ১৬ মার্চ শিক্ষার্থীদের মাঝে সংক্রমণ রোধে সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়। পরবর্তীতে কয়েক দফায় বন্ধের সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন