সহযোগীদের নিরাপদে ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি বাইডেনের

916
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

আফগানিস্তানে থেকে ৬ দিনে ১৩ হাজার মার্কিন নাগরিক ও আফগান মিত্রদের সরিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। হোয়াইট হাউজে এ কথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এছাড়া এখনো আটকে থাকা নাগরিক ও সহযোগীদের নিরাপদে ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

এ সময় কাবুল বিমানবন্দরের বর্তমান পরিস্থিতিকে হৃদয়বিদারক ও ইতিহাসের সবচেয়ে কঠিন বিমান অভিযান বলেও আখ্যা দেন বাইডেন। এর আগে সেনা প্রত্যাহারের সময় পার হলেও সব নাগরিককে ফিরিয়ে না আনা পর্যন্ত কাবুলে সেনা থাকবে বলে ঘোষণা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

জো বাইডেন বলেন, “আমরা প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কাবুল বিমানবন্দর সুরক্ষিত রাখতে পেরেছি। তবে বিমানবন্দরের বাইরের দৃশ্য গুলো সত্যিই হৃদয়বিদারক। এখন পর্যন্ত ১৮ হাজার মানুষকে আমরা সরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছি। যার মধ্যে গত ৬ দিনের ১৩ হাজার কে সরিয়েছি। বাকিদের নিয়ে আসতে আমাদের যা যা করনীয় সব করছি”।

এদিকে, শান্তি প্রতিষ্ঠা ও প্রতিশোধ না নেওয়ার প্রতিশ্রুতির পরও বিদেশিদের সহযোগী আফগান সেনা, সাংবাদিক ও সরকারি কর্মকর্তাদের খোঁজে বাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছে তালেবানরা। অন্যদিকে অসহায় নারী-পুরুষ ও শিশুর কান্নায় ভারী কাবুল বিমানবন্দর।

নানা ইতিবাচক প্রতিশ্রুতির পরও দোভাষী, সংবাদকর্মী ও সরকারি কর্মকর্তাদের খোঁজে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছে তালিবান যোদ্ধারা। প্রাণ বাঁচতে দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় আত্মগোপন করছেন অনেক আফগান সেনা। তাদের না পেয়ে পরিবারের সদস্যদের নির্যাতনের অভিযোগও পাওয়া গেছে।

এছাড়া এক প্রাদেশিক পুলিশ প্রধানকে হত্যার অভিযোগও উঠেছে তালেবানের বিরুদ্ধে। জার্মান সংবাদ মাধ্যম ডয়েচে ভেলের এক সাংবাদকর্মীর খোঁজে বাড়িতে গিয়ে তাকে না পেয়ে তার এক স্বজনকে গুলি করে হত্যা করে তালেবান।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন