বিশ্বকাপে খেলবেন না তামিম ইকবাল

878
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

বড় সিদ্ধান্ত নিলেন বাংলাদেশে জাতীয় ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার আগ্রহ নেই তার। বিষয়টি নিজেই জানিয়েছেন দেশ সেরা এই ওপেনার।

বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) ফেসবুকে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন তামিম।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন বাম-হাতি এই ওপেনার।

ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, আসসালামু আলাইকুম সবাইকে।

আমি কিছুক্ষণ আগে বোর্ড প্রেসিডেন্ট পাপন ভাই ও প্রধান নির্বাচক নান্নু ভাইকে ফোন করেছি। তাদের সঙ্গে কিছু জিনিস শেয়ার করেছি। আমার মনে হয় সবার সঙ্গে শেয়ার করা উচিৎ। আমি তাদের বলেছি, মনে হয় না আমার বিশ্বকাপ দলে থাকা উচিৎ।’

২০২০ সালে মার্চে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সব শেষ সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে খেলতে দেখা গেছিল ৩২ বছর বয়সী তামিমকে নতুনদের সুযোগ করে দিতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান।

‘এটার দুই তিনটি কারণ রয়েছে। গেম টাইম গুরুত্বপূর্ণ। বেশ কয়েকদিন এই ফরম্যাটটা খেলছি না। দ্বিতীয়ত ইনজুরি। বিশ্বকাপের আগে হয়ত ফিট হয়ে যাবো। আমি শেষ ১৫/১৬টা টি-টোয়েন্টি খেলেনি। এই সিদ্ধান্ত নিতে মূল বিষয়টি হচ্ছে, যারা আমার বদলে খেলেছেন, আমি হঠাৎ করে জায়গা হলে তাদের সঙ্গে খারাপ হতো। আমি মনে করি হয়তো বিশ্বকাপ দলে থাকতাম। তবে এটা ভালো হতো না। আমি বোর্ড সভাপতি ও প্রধান নির্বাচককে জানিয়ে দিয়েছি।’

নিউজিল্যান্ড সিরিজ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দলকে অগ্রিম শুভ কামনা জানিয়ে দিয়েছেন তামিম।

‘আপনারা আমাকে বিশ্বকাপে দেখবেন না। তবে এই সিরিজ ও বিশ্বকাপের জন্য দলের প্রতি শুভ কামনা রইল।’

এদিন মাঠে গড়াচ্ছে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজ। অন্যদিকে অক্টোবরে মাঝামাঝি শুরু হচ্ছে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের বিশ্বকাপ। তবে তার আগে তামিম জানিয়ে দিলেন এখনই অবসর নয়।

‘আবারও স্পষ্ট করে দেই আমি অবসর নিচ্ছি না। শুধু বিশ্বকাপ খেলছি না। আমার মনে হয় এটাই সেরা সিদ্ধান্ত। আমার বদলে দলের হয়ে তরুণ যারা ওপেন করছেন তাদেরই সুযোগ পাওয়া উচিৎ। তারা ১৫/১৬টি ম্যাচে খেলেছেন। তাদের প্রস্তুতি আমার থেকেও ভালো, এটাই স্বাভাবিক। আমার তুলনায় তারাই ভালো সার্ভিস দিতে পারবে।’

শেয়ার করতে ক্লিক করুন