ব্রেন ড্রেইনের শিকার আফগানিস্তান

879
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

তালেবান বাহিনী আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর সেখান থেকে ১ লাখ ২০ হাজারের বেশি মানুষকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে বিভিন্ন দেশের সেনাসদস্যসহ আফগানিস্তানের অনেক সরকারি কর্মী, আইনজীবী, ব্যাংকার, সমাজকর্মী, সাংবাদিকসহ নানা পেশার দক্ষ কর্মীরা রয়েছেন।

মূলত তারাই ছিলেন সদ্য ক্ষমতাচ্যুত আফগান সরকার এবং সমাজের চালিকা শক্তি। কিন্তু তালেবানের চোখে তারা দুর্নীতিগ্রস্ত। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই মেধাবী জনগোষ্ঠীকে হারানোর কারণে বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র এই দেশটি পরিচালনা ও গঠনে তালেবানকে বেশ বেগ পেতে হবে।

রাচিদ নামে কাবুলের এক সাবেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ফ্রান্সে আশ্রয় নিয়েছেন। তিনি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘আমি কখনো আমার দেশ ছাড়তে চাইনি। কিন্তু এখন আমি স্ত্রী–সন্তানসহ ফ্রান্সে আশ্রয় নিতে চাচ্ছি।’

ইউরোপের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে পড়াশোনা করা ৪০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি বলেন, ‘আফগানিস্তানে আমার সব ছিল। কাজ নিয়েও আমি সন্তুষ্ট ছিলাম। আমার অধীনে ৫০ জন কাজ করতেন। আমার সামাজিক মর্যাদা ছিল। সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, আমি আফগানিস্তানের জনগণের জন্য এত দিন যা করলাম, তার সবই বৃথা গেল।’

শেয়ার করতে ক্লিক করুন