বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষায় বিতর্কিত প্রতিষ্ঠান

835
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর ল্যাব বসাচ্ছে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়। উদ্দেশ্য ৬ ঘন্টার মধ্যে পরীক্ষার ফল দেয়া। তবে, বিতর্কিত প্রতিষ্ঠানকে বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার অনুমতি দেয়ায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বচ্ছতাকে দুষছেন চিকিৎসকেরা।

এর আগে, বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষা না করেই ভুয়া সনদ দিয়েছিল সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার ও স্টিমজ হেলথ কেয়ার নামের প্রতিষ্ঠান দুটি। এ অবস্থায় আবারও প্রবাসীদের হয়রানি এবং দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ার আশঙ্কা চিকিৎসকদের।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের টেকনিক্যাল কমিটির প্রস্তাব করা ৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে সিএসবিএফ হেলথ সেন্টার ও স্টিমজ হেলথ কেয়ার নামের দুটি প্রতিষ্ঠান; বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা পরীক্ষায় ভুয়া সনদ দেয়ার অভিযোগে যাদের নিষিদ্ধ করেছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। প্রতিষ্ঠান দুটি আবারও কাজ পাওয়ায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন চিকিৎসকরা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহ) ডা. ফরিদ হোসেন মিঞা বলছে, কম খরচে, কম সময়ে বেশিসংখ্যক করোনা পরীক্ষা করতে পারবে এমন প্রতিষ্ঠানকে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষায় গত জুনে সিএসবিএফ ও স্টিমজের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, তারা নমুনা পরীক্ষা না করে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই নেগেটিভ রিপোর্ট দেয়। তাদের দেয়া করোনা নেগেটিভ সনদ নিয়ে বিদেশে গিয়ে পজিটিভ হওয়ায় দক্ষিণ কোরিয়া বাংলাদেশিদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছিল।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন