জাতিসংঘে দূত নিয়োগ দিল তালেবান, ভাষণের আবেদন

1187
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে চলমান সাধারণ অধিবেশনে বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছে তালেবান। জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের কাছে তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকির পাঠানো এক চিঠিতে এই আহ্বান জানানো হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স ওই চিঠি দেখেছে।

গত সোমবার গুতেরেসকে চিঠিটি পাঠানো হয়। জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র ফারহান হকও তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাঠানো চিঠির বিষয়টি রয়টার্সকে নিশ্চিত করেছেন।

রয়টার্স জানায়, কাতারের দোহাভিত্তিক তালেবানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের মুখপাত্র সুহাইল শাহীনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত হিসেবে ঘোষণা করেছে।

গত মাসে পতন হওয়া আফগান সরকারের নিয়োগ দেওয়া জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত গুলাম আইজ্যাকজাই। তালেবান নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দেওয়ায় জটিলতা দেখা দিয়েছে।

জাতিসংঘের মহাসচিবের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তালেবানের আবেদনটি যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়াসহ নয় দেশের সমন্বয়ে গঠিত কমিটির কাছে পাঠানো হয়েছে।

আগামী সোমবার এ বছরের সাধারণ অধিবেশন শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে নয় সদস্যের ওই কমিটির বৈঠক হওয়া নিয়ে সংশয় রয়েছে। ফলে এ বছর তালেবানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিশ্বনেতাদের সামনে ভাষণ দেওয়ার বিষয়টিও অনিশ্চিত বলেই মনে করা হচ্ছে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর কাবুল দখলের মধ্য দিয়ে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এরপর নতুন সরকার গঠনে মনযোগ দেয় দীর্ঘ দুই দশক যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন বিদেশি সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা সশস্ত্র সংগঠনটি। প্রধানমন্ত্রী, ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী ও বেশ কয়েকজন মন্ত্রীর নামও ঘোষণা করা হয়েছে। এবার তারা জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূতের নাম ঘোষণা করল।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সালের শাসনামলে তালেবান যতটা কট্টর নীতি প্রয়োগ করেছিল এবার তারা সেখান থেকে সরে এসে কিছুটা উদারনীতি বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন