অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে চাইঃ প্রধানমন্ত্রী

878
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

একটি অসম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাই বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমি সোনার বাংলাদেশ গড়তে চাই। যে দেশে কোনো ধরনের অন্যায় ও অবিচার থাকবে না, মানুষ সুন্দরভাবে বাঁচবে।
সোমবার (১৮ অক্টোবর) শহীদ শেখ রাসেল-এর ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় ও শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শেখ রাসেল-এর মতো আর কেউ যেন কোনো দিন এমন নির্মমতার শিকার না হয় সেই কামনা করি। সব শিশু যাতে একটি নিরাপদ ভবিষ্যৎ গড়ে তুলতে পারে সে প্রত্যাশাও ব্যক্ত করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। শেখ রাসেল আজ আমাদের মধ্যে নেই, কিন্তু আছে তার পবিত্র স্মৃতি। দেশের সব শিশুর মধ্যে আজও আমি রাসেলকে খুঁজে ফিরি। এই শিশুদের রাসেল-এর চেতনায় গড়ে তুলতে হবে। দেশ পরিচালনাসহ নেতৃত্বদানের ক্ষেত্রে শেখ রাসেল-এর দীপ্ত প্রত্যয়কে হৃদয়ে ধারণ করে তারা উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করবে। আমরা একটি অসম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাই। যেখানে কোনো ধরনের অন্যায় থাকবে না, যে দেশে কোনো অবিচার থাকবে না। মানুষ সুন্দরভাবে বাঁচবে, সেটাই আমরা চাই। আমরা সোনার বাংলাদেশ গড়তে চাই।

ছোট ভাই শেখ রাসেল-এর স্মৃতিচারণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাসেল নামটি মনে আসলেই প্রথমে যে ছবিটি ভেসে ওঠে তা হলো- হাস্যোজ্জ্বল, প্রাণচঞ্চল ছোট্ট-দুরন্ত এক শিশু। যে শিশুর চোখগুলো হাসি-আনন্দে ভরপুর। রাসেল-এর যে দিন জন্ম হলো আমি, কামাল, জামাল, রেহানা আমরা সবাই ভীষণ উৎকণ্ঠায় ছিলাম। সময় যেন থমকে গিয়েছিলো। আমরা সবাই ঘুমঘুম চোখ নিয়ে অপেক্ষা করছিলাম নতুন অতিথির আগমণ বার্তা শোনার জন্য। মেজো ফুফু এসে আমাদের খবর দিলেন, আমাদের ভাই হয়েছে। আমরা তখন খুশিতে আত্মহারা।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন