রাজউকের বিধি ভাঙছে রাজউকই

605
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

রাজউকেরই আইন অনুয়ায়ী বাণিজ্যিক ভবনের বেইজমেন্টে থাকতে হবে গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। অথচ অমান্য করছে তারাই। রাজধানীর খিলক্ষেত ও উত্তরায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুটি বাণিজ্যিক ভবনে পার্কিংয়ের জায়গায় দোকান করেছে রাজউক। এতে গাড়ি পার্কিং হচ্ছে সড়কে, তৈরি হচ্ছে যানজট।

ইমারত বিধিমালা বাস্তবায়নে প্রায়ই রাজধানীতে অভিযান চালায় রাজউক। নকশাবহির্ভুত স্থাপনা এবং পার্কিংয়ের জায়গায় দোকান পেলেই করে উচ্ছেদ।

অথচ উত্তরায় রাজউকের কমার্শিয়াল কমপ্লেক্সেও পার্কিংয়ের জায়গায় দোকান করা হয়েছে। কিন্তু সেদিকে নজর নেই কর্তৃপক্ষের। বহুতল ভবনটির বেইজমেন্টে গড়ে তোলা হয়েছে ইলেকট্রিক, ইলেকট্রনিকস, হার্ডওয়্যার, প্রিন্টিং প্রেসসহ অর্ধশতাধিক দোকান।

এগুলোর কোনটি বিক্রি করেছে রাজউকের কর্মকর্তা-কর্মচারী আবার কোনটি দেয়া হয়েছে ভাড়া। পার্কিং রাখা হয়েছে নামে মাত্র, কেবল কয়েকটি মোটরসাইকেল রাখা যায়। যে কারণে গাড়ি রাখা হচ্ছে সড়কে, তৈরি হচ্ছে যানজট।

আরেক বাণিজ্যিক ভবন খিলক্ষেতের রাজউক ট্রেড সেন্টার। এখানেও বেইজমেন্টে তৈরি করা হয়েছে দোকান। সিঁড়ির নিচে, লিফটের পাশেসহ নকশা বহির্ভুত দোকান রয়েছে একশোর বেশি।

নগর পরিকল্পনাবিদরা বলছেন, এতে ইমারত বিধিমালা লঙ্ঘণ হয়েছে। রাজউকের ভবনে এমন অনিয়ম গ্রহণযোগ্য নয়।

এ অনিয়মের কিছুই জানা নেই বলে দাবি রাজউক কর্তৃপক্ষের। বিষয়টি খতিয়ে দেখার কথা জানিয়েছে সংস্থাটি।

প্রতিটি দোকানের মাসিক ভাড়া ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা। দেড়শো দোকান থেকে বছরে আয় কয়েক কোটি টাকা।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন