রুশ-ইউক্রেন উত্তেজনা তুঙ্গে

701
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

সীমান্তে সেনা সমাবেশ নিয়ে আবারও রুশ-ইউক্রেন উত্তেজনা তুঙ্গে। রাশিয়ার যে কোনো আক্রমণ ঠেকাতে ইউক্রেনের সেনারা প্রস্তুত বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট। ইউক্রেনের ওপর রাশিয়া হামলা চালালে তার চড়া মূল্য দিতে হবে বলে সতর্ক করেছেন পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর প্রধান।

ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থার দাবি, সীমান্তে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসরঞ্জাম, সাঁজোয়া যান ও প্রায় এক লাখ সেনাসহ হামলার ছক কষছে রাশিয়া। জানুয়ারির শেষ বা ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে এই হামলা চালানো হতে পারে। এরইমধ্যে এ ধরনের দাবিকে রাশিয়ার পক্ষ থেকে উড়িয়ে দেওয়া হলেও সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে ইউক্রেনের সেনারা।

সীমান্তে যে কোনো ধরনের হামলা ঠেকাতে সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে কিয়েভ। হামলা হলে ইউক্রেনের সেনারা যাতে তাদের প্রতিহত করতে পারে সে জন্য এরই মধ্যে সীমান্তে নিয়মিত মহড়া চালাচ্ছে ইউক্রেনের সেনারা।

ইউক্রেনের সেনারা জানান, আমাদের ওপর হামলা হলে আমরাও তাদের প্রতিহত করার জন্য প্রস্তুত রয়েছি। প্রতিরোধের সব বিকল্প পথ আমরা তৈরি করে রেখেছি। রুশ সেনাদের আমরা ইউক্রেনে প্রবেশের কোনো সুযোগই দেব না। তাদের প্রতিহত করতে আমাদের শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে হলেও লড়াই চালিয়ে যাব।
সীমান্তে সেনা সমাবেশ নিয়ে রাশিয়া বিপজ্জনক সংকেত পাঠাচ্ছে বলে মন্তব্য করছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।
২০১৪ সাল থেকে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। ইউক্রেনের দাবি, এতে সরাসরি মদদ দিচ্ছে রাশিয়া।

এর আগে পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, রাশিয়া যদি ইউক্রেনের বিরুদ্ধে শক্তি প্রয়োগ করে, তবে তার চড়া মূল্য দিতে হবে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন