সড়ক পরিবহন আইন সংশোধন করা হচ্ছে

705
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সড়ক পরিবহন আইন সংশোধন করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে দলীয় সভাপতির কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

জনগণের ইচ্ছায় সরকার ক্ষমতায় এ কথা উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির ইচ্ছায় সরকারের পতন হবে না।
আরও পড়ুন: শিক্ষার্থীর মৃত্যু: রামপুরায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

এদিকে, গণপরিবহনে একের পর এক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার ঘটনায় বেশ কয়েকদিন ধরেই চলছে আন্দোলন।

অবশেষে আজ-মঙ্গলবার গণপরিবহণে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস ( অর্ধেক ভাড়া) দাবি মেনে নিয়েছেন পরিবহন মালিকরা। এক্ষেত্রে কিছু শর্তও নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামীকাল (১ ডিসেম্বর) থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ।

তিনি বলেন, ভ্রমণকালে বিআরটিসি বাসের মতোই ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অবশ্যই নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বৈধ পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। প্রয়োজনে তা প্রদর্শন করতে হবে। বিআরটিসি বাসে চলাচলের ক্ষেত্রে সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা হাফ ভাড়ার সুবিধা পাবে। তবে ব্যক্তি মালিকানাধীন বাসে এ সুবিধা শুরু হবে সকাল ৮ টায়, চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

এছাড়াও ছুটির দিন হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না। হাফ ভাড়া শুধু ঢাকায় সীমাবদ্ধ, অন্যান্য জেলার জন্য নয় বলে জানিয়েছেন খন্দকার এনায়েত উল্যাহ।
এদিকে, তিনি আরও জানান, ঢাকার বাইরে শিক্ষার্থীদের দিতে হবে ফুল ভাড়া।
আগামীকাল থেকে বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার বিষয়টি কার্যকর হবে। তবে শুধুমাত্র ঢাকায় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া নেওয়া হবে। ঢাকার বাইরে সবাইকে দিতে হবে ফুল ভাড়া।
সংবাদ সম্মেলনে শর্তগুলো উল্লেখ করে খন্দকার এনায়েত জানান, হাফ ভাড়ার বিষয়টি শুধুমাত্র ঢাকার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। সেক্ষেত্রে ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতে যেসব শিক্ষার্থী চলাচল করবে তাদের বাসের সম্পূর্ণ ভাড়া পরিশোধ করতে হবে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন