পদ্মা-মেঘনা নামেই বিভাগের ইচ্ছা প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর

494
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

মেঘনা ও পদ্মা নামে দুটি বিভাগ করতে আবারও ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে স্বচ্ছতা বজায় রেখে সংশ্লিষ্টদের কাজ করার নির্দেশনা দেন।

মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে শের-ই-বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভায় এই ইচ্ছা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে সাত হাজার ৪৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০টি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি-একনেক।

সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন একনেক সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী, কৃষিমন্ত্রী, স্থানীয় সরকারসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্তারা।

প্রকল্পগুলোর মধ্যে ডিজিটাল সরকার ও অর্থনীতি সমৃদ্ধকরণ শীর্ষক প্রকল্পে ২ হাজার ৫৪১ কোটি, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের অবকাঠামো উন্নয়নে ১ হাজার ৫৩৮ কোটি, ক্লাইমেট স্মার্ট অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট প্রকল্পে ১ হাজার ১৮২ কোটিসহ পাঁচটি মেডিকেল কলেজে বার্ন ইউনিট স্থাপনে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৫৬ কোটি টাকা অনুমোদন করা হয়েছে।

অনুমোদন করা প্রকল্প নিয়ে ব্রিফ্রিং করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

দেশে পদ্মা ও মেঘনা নামে দুটি বিভাগ হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ফরিদপুর বিভাগ হবে পদ্মার নামে। আর কুমিল্লা বিভাগ হবে মেঘনা নামে। গত ২১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকালে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

ওই অনুষ্ঠানে কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার দাবি জানান, কুমিল্লা নামে বিভাগ দেওয়ার। প্রধানমন্ত্রী এর বিরোধিতা করে বলেন, ‘কু’ নাম দেব না। কুমিল্লা নামের সঙ্গে মোশতাকের নাম জড়িত।

সরকার প্রধান বলেন, কুমিল্লার নাম নিলেই মোশতাকের নাম মনে পড়ে যায়। তাই কুমিল্লার নাম আসবে না। এ ছাড়া অন্যান্য জেলাও চাইবে তাদের নামে হোক। তাই কুমিল্লা বিভাগের নাম হবে মেঘনা। এটা আমার প্রস্তাব। তা ছাড়া ফরিদপুরের নামেও বিভাগ দিচ্ছি না। ফরিদপুর বিভাগ হবে পদ্মা নামে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন