স্বাধীন দেশ হিসেবে আগামীকাল পূর্ণ হচ্ছে বিজয়ের পঞ্চাশ বছর

661
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

স্বাধীন দেশ হিসেবে কাল পূর্ণ হচ্ছে বিজয়ের পঞ্চাশ বছর। মুক্তিযুদ্ধে অকুতোভয় বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত গোটা জাতি। সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধেও চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে থাকছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নজরদারি।

লাল-সবুজের অহংকার বাংলার আকাশে, বিজয়ের গল্পে দেশ এখন পঞ্চাশে। বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে ঢল নামবে বাঙালির স্বাধীনতার প্রতীক জাতীয় স্মৃতিসৌধে। ফুলে ফুলে ছেঁয়ে যাবে শহীদ বেদি।

রং-তুলির আঁচড়ে নতুন রূপে সাজানো হচ্ছে পুরো প্রাঙ্গণ। চলছে ধোঁয়া-মোছার কাজ। সব মিলিয়ে সাজ সাজ রব রাজধানীর অদূরে সাভারের এই স্মৃতির মিনারে।

একজন বলেন, গতবছর আমরা ঢালাওভাবে পালন করতে পারিনি। কিন্তু এ বছর যে আমরা উৎসবটা পালন করতে পারবো এজন্য আমাদের মাঝে একটা আগ্রহ রয়েছে।

আরেকজন বলেন, স্বাধীনতাকে ধারণ করা, বুকে লালন করা আমাদের নৈতিক এবং ধর্মীয় দায়িত্ব।

সাভার গণপূর্ত বিভাগের উপসহকারী প্রকৌশলী মিজানুর রহমান বলেন, গণপূর্ত অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে প্রায় দুইমাস যাবত পুরো স্মৃতিসৌধ কমপ্লেক্স ধুয়ে মুছে পরিষ্কার-পরিপাটি করা, ফুল দিয়ে সাজানো, সিসি ক্যামেরা স্থাপন, লেক সংস্কারসহ সকল কাজ সম্পন্ন করেছি।

সূর্য সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে শেষ মুহূর্তের মহড়ায় তিন বাহিনীর চৌকস দল। স্মৃতিসৌধ কমপ্লেক্স ও আশপাশের এলাকা আনা হয়েছে সিসি ক্যামেরার আওতায়। নেয়া হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা।

ঢাকার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, আমাদের যে ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন আমরা সকল ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। পাশাপাশি আনন্দঘন একটি পরিবেশে বিজয় দিবসের ফুল দেয়ার অনুষ্ঠান সম্পন্ন করবো।

বিজয়ের দিনে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব মানুষের প্রাণোচ্ছ্বাসে ভরে উঠবে পঞ্চাশের বাংলাদেশ।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন