র‌্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা অপ্রত্যাশিত, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে মোমেন

641
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

র‌্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা অপ্রত্যাশিত, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে মোমেন

মাদক পাচার রোধে মার্কিন গ্লোবাল পলিসির অংশ হিসেবেই র‌্যাব মাদক ও মানব পাচার রোধে কাজ করে। তাদের কাজের স্বচ্ছতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই। তাই তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা অত্যন্ত দুঃখজনক।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন ফোন দিলে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন। চ্যানেল ২৪-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তিনি।

এর আগে বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ড. মোমেনকে ফোন করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ফোনালাপে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক এগিয়ে নেয়ার বিষয়ে আলোচনা করেন বলে এক টুইটবার্তায় জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মাধ্যমে বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানাতেই ফোন করেছিলেন অ্যান্টনি ব্লিনকেন। এ সময় গত পাঁচ দশক ধরে দুই দেশের চলমান সুসম্পর্ক বজায় রেখে ভবিষ্যতে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও জোরদার করার বিষয়ে দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী একমত পোষণ করেন।

ফোনালাপে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ঢাকায় দাওয়াত দেন ড. একে আব্দুল মোমেন। আগামীতে সম্পর্ক উন্নয়নে উভয় দেশকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় আগামী বছরে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক এগিয়ে নিতে উচ্চ পর্যায়ে একাধিক সংলাপের বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

জানা গেছে, ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সৌজন্য সাক্ষাত এবং নৈশভোজে যোগ দিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বঙ্গভবনে ছিলেন। ওই সময় ড. মোমেনের মোবাইল ফোনে কল দেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। বঙ্গভবন থেকেই অ্যান্টনি ব্লিনকেনের ফোন কলটি রিসিভ করেন ড. মোমেন।

প্রসঙ্গত, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) কয়েকজন বতর্মান ও সাবেক কর্মকর্তাকে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কয়েক দিনের মধ্যেই স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনকে ফোন করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন