ঢাকায় করোনা শনাক্তের ৬৯ শতাংশই ওমিক্রনের ধরন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

948
Health Minister
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

রাজধানীতে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের ৬৯ শতাংশের শরীরেই ওমিক্রনের উপস্থিতি রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এসময় মন্ত্রী আরও জানান, শুধুমাত্র ঢাকায় চালানো এক জরিপে দেখা যায়, ঢাকাতে করোনা শনাক্তের ৬৯ শতাংশই ওমিক্রন ধরন। সেটা আগে ১৩ শতাংশে ছিল। ওমিক্রন শনাক্তের ঢাকার বাইরেও একই হবে বলে মনে করেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমরা টিকা দিয়ে যাচ্ছি, পাশাপাশি আমাদের ওমিক্রন ও ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। তাতে আমরা কিছুটা হলেও চিন্তিত ও আতঙ্কিত। আমরা চাই না, সংক্রমণ এভাবে বৃদ্ধি পাক।

মন্ত্রী আরও জানান, করোনা সংক্রমণ থেকে সুরক্ষায় বুস্টার ডোজের বয়সসীমা কমানো হয়েছে। এখন থেকে ৫০ বছরের বেশি বয়সীদেরও করোনা টিকার বুস্টার ডোজ দেয়া হবে। যা প্রধানমন্ত্রী আমাদের অনুমোদন দিয়েছেন। এখন পর্যন্ত ৭ লাখ বুস্টার ডোজ দেয়া হয়েছে। তবে বুস্টার ডোজে খুব বেশি অগ্রগতি হয়নি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, চুক্তি অনুযায়ী এখনও রাশিয়ার টিকা পাওয়া যায়নি। রাশিয়ান অ্যাম্বাসেডর এসেছিলেন টিকার বিষয়ে কথা বলতে। রাশিয়ার সঙ্গে টিকার চুক্তি করেছিলাম, সেটা এখনো আছে। তবে আমরা এখনো তাদের কাছ থেকে চুক্তির টিকা পাইনি। আমরা চুক্তি অনুযায়ী টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করতে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূতকে বলেছি।

স্বস্থ্য মন্ত্রী জানান, গতবার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত ২৯-৩০ শতাংশে উঠতে সময় লেগেছে এক মাস। এভার করোনা যেভাবে বাড়ছে তাতে ৩০ শতাংশ হতে বেশি দিন লাগবে না।

তিনি বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত এক কোটি সাত লাখ শিক্ষার্থীকে টিকা দিয়েছি। এখনও প্রায় ৯ কোটি ৩০ লাখ ডোজ টিকা মজুত রয়েছে। আমাদের টিকার কোনো ঘাটতি হবে না।

এদিকে রোববার দেশে নতুন করে আরও ২২ জনের দেহে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। নতুন রোগীদের সবাই ঢাকার বাসিন্দা। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্তের খবর পাওয়া গেল।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন