বুধবার ইউক্রেনে হামলা করবে রাশিয়া?

725
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

জার্মানির একটি গণমাধ্যম গোয়েন্দা তথ্যের সূত্র ধরে জানিয়েছে, আগামী বুধবারই ইউক্রেনে হামলা চালাতে যাচ্ছে রাশিয়া। যদিও বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি জার্মানি। হোয়াইট হাউসও এই খবরের বিষয়ে কিছু বলেনি।

তবে স্থানীয় সময় রোববার হোয়াইট হাউস দাবি করেছে, এই সপ্তাহের মধ্যেই যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। সে কারণেই ইউক্রেন থেকে মার্কিন নাগরিক এবং কূটনীতিকদের সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া ন্যাটোও একইরকম সতর্কতা জারি করেছে।

অবশ্য বুধবার আক্রমণের বিষয়টিও সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছে রাশিয়া।

জার্মানির সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, এই খবরের প্রতিক্রিয়ায় রাশিয়া জানিয়েছে, যুদ্ধের কোনো পরিকল্পনা তাদের নেই। তারা নয়, আগ্রাসন দেখাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটোর বাহিনী। প্রয়োজনে রাশিয়া তার জবাব দেবে। অর্থাৎ, যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হলেও বল ন্যাটো এবং যুক্তরাষ্ট্রের কোর্টে রাখতে চাইছে রাশিয়া।

এদিকে, চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য ইউক্রেন সফরে গিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস।

সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ পৌঁছেছেন।

ইউক্রেনে রুশ হামলার আশংকা নিয়ে উত্তেজনা তীব্র হওয়ার প্রেক্ষাপটে তিনি কিয়েভ সফরে গেলেন। এরপর তিনি মস্কো সফরে যাবেন।

এর আগে গত সপ্তাহে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো সংকট নিরসনে একই উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ন্যাটো জোটে ইউক্রেনের সদস্যপদ এবং পূর্ব ইউরোপে এই জোটের সম্প্রসারণ ঠেকাতে চান। তিনি পশ্চিমাদের কাছে নিরাপত্তা গ্যারিন্টিও দাবি করেন। কিন্তু পশ্চিমারা এ দাবিতে কর্ণপাত না করায় তিনি ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় এক লাখ সৈন্যের সমাবেশ ঘটান।

যদিও আলোচনার মাধ্যমে সংকট নিরসনের চেষ্টা করছে জার্মানি ও ফ্রান্স।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন