রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে প্রথম কোনো বাংলাদেশি নিহত

470
Ukrain-BD
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে প্রথমবারের মতো কোনো বাংলাদেশি মারা গেলেন। নিহত হাদিসুরের বাড়ি বরগুনার বেতাগি উপজেলায়।

বাংলাদেশ সময় বুধবার (২ মার্চ) রাত ৯টা ২৫ মিনিটে ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে আটকে থাকা বাংলাদেশি জাহাজ ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজে রকেট হামলার শিকার হয়েছে। এতে ওই জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার মো. হাদিসুর রহমান মারা গেছেন। তিনি জাহাজটির থার্ড ইঞ্জিনিয়ারের দায়িত্বে ছিলেন। বাকি ২৮ ক্রু অক্ষত আছেন।

বাংলাদেশি জাহাজটিতে হামলার খবর গণমাধ্যমকে ফেসবুক মেসেঞ্জারে নিশ্চিত করেছেন জাহাজটিতে থাকা একজন নাবিক।

হাদিসুর রহমান থার্ড ইঞ্জিনিয়ার বা সেকেন্ড অ্যাসিটেন্ট ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে জাহাজটির ইঞ্জিনের তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির দায়িত্বে ছিলেন বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন সাজিদ। স্ট্যাটাস হুবুহু তুলে ধরা হলো- ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধিতে রকেট হামলা। একজন বাদে বাকি সবাই অক্ষত। কিছুক্ষণ আগে বাংলাদেশ সময় (২ মার্চ ২০২২) রাত প্রায় ৯:২৫-এ জাহাজের ব্রিজে রকেট হামলা হয়েছে। সবার সাহসী তাৎক্ষণিক পদক্ষেপে আগুন নিভাতে পেরেছে। সবাই আল্লাহর কাছে ওদের জন্য সাহায্য প্রার্থনা করি। এছাড়া গভীর বেদনার সঙ্গে জানাচ্ছি যে, জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার মো. হাদিসুর রহমান মৃত্যুবরণ করেছেন।’

উল্লেখ্য, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে যায় ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’। সিরামিকের কাঁচামাল নিয়ে ইতালির র‍্যাভেনা বন্দরে যাবার কথা ছিল জাহাজটির। জাহাজে ২ নারীসহ বাংলাদেশের ২৯ জন নাবিক রয়েছেন। বন্দরটিতে বিভিন্ন দেশের আরো প্রায় ২০টি জাহাজ আটকে আছে।

এর আগে গতকাল খারকিভে এক ভারতীয় শিক্ষার্থীর প্রাণ গেছে ইউক্রেন যুদ্ধে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন