কর্মক্ষেত্রে নারীর অধিকার নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ

647
স্বাধীনতার আদর্শ থেকে প্রজন্মকে আর বিভ্রান্ত করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

নারীদের উন্নয়ন নিয়ে বর্তমান সরকার কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরের দ্বিতীয় দিনে দুবাই এক্সিবিশন সেন্টার পরিদর্শন শেষে এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

এক্সিবিশন সেন্টারে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন এবং ইউএই প্যাভিলিয়ন পরিদর্শন করেছেন তিনি। এরপরে প্রধান মন্ত্রী আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে একটি শীর্ষ পর্যায়ের প্যানেল আলোচনায় যোগ দেন।

আলোচনায় তিনি বলেন, ২১ বছর পর আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসেই সব ধরনের কর্মক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণের সুযোগ তৈরি করে দেয়। এছাড়াও দেশের মাধ্যমিক থেকে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষায় সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, দেশের উচ্চপদে অনেক নারীরাই কাজ করছে। জাতীয় সংসদে স্পীকার, সংসদীয় দলনেতা, বিরোধী দলের নেতা নারী বলেও অনুষ্ঠানে জানান প্রধানমন্ত্রী। স্বাধীনতার পরে নারী নেতৃত্বের উন্নয়ন করতে তাদের জন্য সংরক্ষিত আসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেও জানান সরকার প্রধান।

প্রধানমন্ত্রী আলোচনায় আরো বলেছেন, জনগণের সহযোগিতা, সমর্থনই আমাদের সরকারের বড় শক্তি। জনগণ বিশ্বাস করে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্ভব। আমার বাবা-মা-ভাইসহ অনেককেই ৭৫এর হত্যা করেছিলো ঘাতকরা।

তারপর ১৯৮১ সালে যখন দেশে ফিরি, তখন হত্যাকারীরাই দেশের ক্ষমতায় ছিল। এরপর আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনা হয়। ক্ষমতায় এসে অর্থনৈতিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে দেশ উন্নত হয়ে উঠছে বলে উল্লেখ করেন সরকার প্রধান।

এর আগে ৫ দিনের সফরে সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে আবুধাবি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. আবু জাফর।

পরে বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা দেয়া হয়। এছাড়াও ২১ সদস্যের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন।

আগামী ১০ মার্চ এফ/এ/ও আঞ্চলিক সম্মেলন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের উদ্যোগে যৌথভাবে আয়োজিত বিজনেস ফোরামে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরপর ১১ মার্চ তিনি প্রবাসী বাংলাদেশি আয়োজিত এক নাগরিক সংবর্ধনায় যোগ দেবেন। আগামী ১২ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছ।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন