পুতিন গণতন্ত্রপন্থি বিদ্রোহের শঙ্কায় আতঙ্কিত : বরিস জনসন

232
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দেশটির রাজধানী মস্কোতে বিপ্লবের আশঙ্কায় ‘আতঙ্কে’ রয়েছেন বলে দাবি করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। তিনি শনিবার কনজারভেটিভ পার্টির সম্মেলনে এমন দাবি করেন। খবর সিএনএনের।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তাঁর ভাষণে বলেন, ‘কেন তিনি (পুতিন) একটি সম্পূর্ণ নিরপরাধ দেশের ওপর হামলা চালানোর সিদ্ধান্ত নিলেন? তিনি আসলে বিশ্বাস করেননি যে, ইউক্রেন শিগগিরই যেকোনো সময় ন্যাটোতে যোগ দিতে যাচ্ছে। তিনি খুব ভালোভাবে জানতেন যে, ইউক্রেনের মাটিতে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের কোনো পরিকল্পনা তাঁর নেই।’ কনজারভেটিভ পার্টির টুইটারে পেইজে বরিস জনসনের ভাষণটি সম্প্রচার করা হয়।

বরিস জনসন আরও বলেন, পুতিন ইউক্রেনের স্বাধীন গণমাধ্যম, অবাধ নির্বাচন, মুক্ত গণতন্ত্র এবং উন্মুক্ত বাজারের কারণে দেশটিকে ‘ভয়’ পেয়েছিলেন। এবং ইউক্রেনের এমন ব্যবস্থা দেখে ‘তাঁর প্রতি (রাশিয়ার মানুষ) তিরস্কার’ করবে বলে আশঙ্কা করেছিলেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি (পুতিন) তাঁর ও রাশিয়ার ওপর ইউক্রেনীয় ব্যবস্থার প্রভাব দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।’

‘এবং তিনি মস্কোর তথাকথিত রঙিন বিপ্লব নিয়ে সম্পূর্ণ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। সে কারণেই তিনি ইউক্রেনের স্বাধীনতার শিখা নেভানোর জন্য এত নৃশংসভাবে চেষ্টা করছেন। এবং এ কারণেই তাঁর ব্যর্থ হওয়াটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

শেয়ার করতে ক্লিক করুন