১৫ থেকে ২১ জুন দেশব্যাপী জনশুমারি, হবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে

129
শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশকে মেলাবেন না: পরিকল্পনামন্ত্রী
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

প্রথমবারের মতো ডিজিটাল মাধ্যমে জনশুমারি ও গৃহগণনা করবে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো-বিবিএস। আগামী ১৫ থেকে ২১ জুন পর্যন্ত চলবে এই কার্যক্রম।

বুধবার (১৩ এপ্রিল) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ বিষয়ে অবহিতকরণ কর্মশালায় এ তথ্য জানায় বিবিএস।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, গত বছর এ প্রকল্পটি অনুমোদন পেলেও বাস্তবায়নে যেতে কিছুটা দেরি হল। কিন্তু কিছুটা দেরি হলেও এবার ডিজিটাল পদ্ধতিতে হওয়ায় আমরা নিখুঁত ও বিশুদ্ধ তথ্য পাব।

তিনি বলেন, সরকার জনগণের অর্থ ব্যয় করে কোনো তথ্য গোপন করতে এই শুমারি করছে না। বরং সকল তথ্যই সবার জন্য উম্মুক্ত থাকবে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ডিজিটাল মাধ্যমে শুমারি করায় ভুলের সম্ভাবনা শূন্যের কোটায় থাকবে। আধুনিক ডিজিটাল পদ্ধতিতে জনশুমারি করায় ভবিষ্যতের শুমারির খরচ কমাসহ উন্নত দেশের মতো ৫ বছর পর পর শুমারি করার সুযোগ তৈরি হবে বলে জানান মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী।

দেশে প্রথমবারের মতো এই ডিজিটাল শুমারিতে তথ্য সংগ্রহের জন্য ৩ লাখ ৯৫ হাজার ট্যাব ব্যবহার করা হবে। মাঠপর্যায়ে মূল শুমারির তথ্য সংগ্রহে সাময়িকভাবে নিযুক্ত থাকবে প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার কর্মী।

পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম। এছাড়া বিবিএস মহাপরিচালক মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম এতে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন