অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কেনায় বিড়ম্বনা; কমলাপুরে হাজারো মানুষ

116
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরুর আগের দিনই রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে প্রচণ্ড ভিড় দেখা গেছে। মূলত অনলাইনে টিকিট কাটতে না পেরে এই ভিড় তৈরি হয়েছে।
কাউন্টারের সামনে দীর্ঘ সারি তৈরি হওয়ায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেও টিকিট সংগ্রহ করতে পারছেন না অনেকে। এ নিয়ে ক্ষোভ জানান তারা।

ঈদযাত্রায় মানুষের চাপ শুরু হওয়ার আগেই অনলাইনে ২৬ তারিখের টিকিট কিনতে ব্যর্থ হয়ে কমলাপুর রেলস্টেশনে ভোর থেকেই ভিড় করতে থাকেন যাত্রীরা। আগামীকাল থেকে পাঁচদিন ধরে ঈদের আগাম টিকিট বিক্রি করবে রেলওয়ে। আন্তঃনগর ট্রেনের জন্য কমলাপুর স্টেশন থেকে প্রতিদিন প্রায় ত্রিশ হাজার টিকিট বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে। এসব টিকিটের অর্ধেক স্টেশনের কাউন্টারে বাকি অর্ধেক অনলাইনে বিক্রি হওয়ার কথা। এবারের ঈদে ফিরতি যাত্রার আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে পহেলা মে থেকে।

উল্লেখ্য, আগামীকাল ২৩ এপ্রিল থেকে ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করবে রেল কতৃপক্ষ। সেই হিসেবে ২৭ এপ্রিলের টিকিট ২৩, ২৮ এপ্রিলের টিকিট ২৪, ২৯ এপ্রিলের টিকিট ২৫, ৩০ এপ্রিলের টিকিট ২৬ ও ১ মের টিকিট ২৭ এপ্রিল বিক্রি করা হবে। অগ্রিম টিকিট বিক্রি নির্ধারিত দিনে সকাল ৮টায় শুরু হবে। যেসব স্টেশনে টিকিট বিক্রি করা হবে, তার সবগুলোতে নারী ও প্রতিবন্ধীদের জন্য পৃথক কাউন্টার থাকবে।

ঈদের অগ্রিম টিকিট পাওয়া যাবে পাঁচটি রেলস্টেশন থেকে। কেন্দ্রগুলো হলো-কমলাপুরে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ও খুলনাগামী স্পেশাল ট্রেন, ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশনে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন, তেজগাঁও স্টেশনে ময়মনসিংহ, জামালপুরগামী ও দেওয়ানগঞ্জ স্পেশালসহ সব আন্তঃনগর ট্রেন, মোহনগঞ্জগামী মোহনগঞ্জ ও হাওর এক্সপ্রেসের টিকেট ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন, ফুলবাড়ীয়া পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট দেয়া হবে।

এদিকে ফিরতি যাত্রার টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১ মে থেকে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন