টিটিই শফিকুলের বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার: রেলমন্ত্রী

319
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে ট্রেনের টিটিই’র সাথে বাকবিতণ্ডার জেরে টিটিই’কে বরখাস্ত করার আদেশ বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

একইসঙ্গে যে ডিসিও টিটিইকে বরখাস্তের এ আদেশ দিয়েছিলেন তাকেও শোকজ করা হয়েছে বলেও জানান রেলমন্ত্রী। রবিবার দুপুরে রেলভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন এসব কথা জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী আরও জানান, বরখাস্তের আদেশটি সঠিক ছিল না তাই এ আদেশ প্রত্যাহার করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় বিব্রত জানিয়ে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘আমার স্ত্রী তার আত্মীয়ের বিষয়ে রেল কর্মকর্তাকে ফোন দেয়া ঠিক হয়নি। সে আমার সাথে বিষয়টা তাৎক্ষণিক শেয়ার করলে এমন ঘটনা ঘটতো না। এমন অনভিপ্রেত ঘটনায় আমি বিব্রত।’

রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দিয়ে বিনা টিকিটে ভ্রমণকারীর বিষয়ে নুরুল ইসলাম সুজন জানান, ওই ব্যক্তি তার স্ত্রীর আত্মীয়। আর তাকে আগে চিনতেন না বলেও উল্লেখ করেন মন্ত্রী। মাত্র ৯ মাস হলো বিয়ে করেছেন তাই সব আত্মীয়কে চেনেন না বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান নুরুল ইসলাম সুজন।

নাম ভাঙিয়ে আত্মীয় পরিচয়ে বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণের বিষয়ে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ‘কেউ রাস্তায় পরিচয় দিলে আমার দোষ কোথায়?’

প্রসঙ্গত, গত বুধবার দিবাগত রাতে খুলনা থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে রেলমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে বিনা টিকিটে রেল ভ্রমণ করছিলেন ৩ যাত্রী। এ সময় ভ্রমণকারী তিন ট্রেনযাত্রীকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরীক্ষক (টিটিই) শফিকুল ইসলাম। পরে ওই ৩ যাত্রী তাদের সঙ্গে অসদাচরণ করা হয় বলে রেলের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দেন।

এর জেরে পরদিন বিকেলে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (ডিসিও) নাসির উদ্দিনের নির্দেশে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এ ঘটনার জেরে গতকাল শনিবার রেলমন্ত্রী জানান, টিটিই যাত্রীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করায় তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন