আন্তর্জাতিক দরপত্রে ৫০ হাজার টন গম কিনল বাংলাদেশ

63
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

খাদ্য সরবরাহ বাড়াতে আন্তর্জাতিক দরপত্রে ৫০ হাজার টন গম কিনেছে বাংলাদেশ। এ দরপত্রের মেয়াদ গত ১৪ জুলাই শেষ হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বাংলাদেশি ও ইউরোপিয়ান ব্যবসায়ীরা এ তথ্য জানিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাত দিয়ে বিজনেস রেকর্ডারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সিঙ্গাপুরের ট্রেডিং হাউস ইন্ট্রা বিজনেস থেকে গমগুলো কেনা হয়। প্রতি টনের দাম পড়ে ৪৭৬ ডলার ৩৮ সেন্ট।

এর আগে গত ২০ জুলাই আন্তর্জাতিক দরপত্রে আরও ৫০ হাজার টন গম কেনে বাংলাদেশ। যার মেয়াদ শেষ হয় গত ৫ জুলাই। ওই সময় প্রতি টন ৪৪৮ দশমিক ৩৮ ডলারে কেনা হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে গোটা বিশ্বে খাদ্যসঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। ফলে খাদ্যপণ্য রিজার্ভে মনোযোগ দিয়েছে এদেশ। ফলে বেশি গম কিনছে তারা।

ইউক্রেন ও রাশিয়ার শস্য রপ্তানি ব্যাহতের কারণে অনেক আমদানিকারক দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম।

বিগত কয়েক মাস ভারত থেকে সর্বোচ্চ গম আমদানিকারক দেশ ছিল বাংলাদেশ। তবে কয়েক মাস ধরে খাদ্যশস্যটি রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে ভারতীয় সরকার। এতে এশিয়ার বাজারে ভোগ্যপণ্যটির সরবরাহ সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

সম্প্রতি ভারতের গমের দাম রেকর্ড বেড়েছে। দেশটিতে তীব্র তাপপ্রবাহে খাদ্যশস্যটির উৎপাদন ব্যাপক কমেছে। ফলে বাজারে সরবরাহ হ্রাস পেয়েছে। এ অবস্থায় বিশ্ব খাদ্যসঙ্কটের মধ্যে ভারতীয় গমের প্রবল চাহিদা তৈরি হয়েছে। এতে খাদ্যপণ্যটির মূল্য সর্বোচ্চ বৃদ্ধি পেয়েছে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন