পহেলা সেপ্টেম্বর থেকে ওএমএসে ১৫ টাকা কেজিতে চাল বিক্রি

12
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে সারা দেশে একযোগে ব্যাপকভাবে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার । ভোক্তারা ১৫ টাকা কেজি দরে চাল কিনতে পারবে জানিয়ে মন্ত্রী প্রত্যাশা করেন এর ফলে বাজারে চালের দাম নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

রোববার (১৪ আগস্ট) সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ৫০ লাখ পরিবারের ৪ কোটি মানুষকে টার্গেট করে ১ সেপ্টেম্বর থেকে ব্যাপকভাবে ওএমএস কার্যক্রম শুরু হবে। এ কর্মসূচি জেলা শহর, পৌরসভা ও সিটি এলাকায় একযোগে চলবে।
তিনি বলেন, আমাদের দুই হাজার ১৩ জন ডিলার আছে। প্রত্যেক ডিলার প্রতিদিন ২ টন করে চাল পাবে। ভোক্তারা মাসের হিসেবে ৩০ কেজি চাল পাবেন ১৫ টাকা প্রতি কেজি দরে। চালের দাম নিয়ন্ত্রণে এই মুহূর্তে বাজার মনিটরিং জোরদার করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, চালের সরকারি মজুত আছে। সাধারণ মানুষের জন্য জন্য আমরা ১ সেপ্টেম্বর থেকে এসব কর্মসূচি শুরু করবো।

তিনি জানান, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি বছরে পাঁচ মাস হয়- সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর এবং মার্চ ও এপ্রিল। ৫০ লাখ পরিবার যখন উপকৃত হবে তখন বাজার থেকে চাল কেনা লাগবে না। ১৫ টাকা করে মাসে ৩০ কেজি চাল কিনতে পারবে।

এই কর্মসূচিতে তালিকাভুক্ত পরিবার চাল কিনতে পারবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ওএমএসে এখন সিটিগুলোতে ২ হাজার ১৩ জন ডিলারের জন্য ১ টন করে চালু আছে। সেখানে আমরা দ্বিগুন করে দেব। অর্থাৎ ডিলাররা ২ টন করে চাল পাবে। ৩০ টাকা কেজিতে একজন ৫ কেজি চলে চাল পাবে। ওএমএসের চাল সবাই কিনতে পারবে।

ডিজেলের দাম বৃদ্ধির কারণে উৎপাদন খরচ বেড়ে যাবে। এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, সেই সময়ের চিন্তা সেই সময়ে করা যাবে। যারা পলিসি লেবেলে আছেন সেই সিদ্ধান্ত তারা নিয়েছেন। চালের দামটা স্থিতিশীল রাখতে পারলেই আমরা মনে করি আমাদের সাইট থেকে…। এটা বিশ্বব্যাপী বিষয়, এটার উত্তর আমি একা দিতে রাজি না।

চালের দাম বৃদ্ধির কারণে আমদানিরও চিন্তা রয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন