পদ্মা সেতুতে রেল লাইন বসানোর কাজ শুরু

175
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

পদ্মা সেতুতে রেললাইন বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। আগামী বছরের জুনে ঢাকা-ভাঙ্গা রুটে রেল চালুর পরিকল্পনা রয়েছে। আর চলতি বছরের ডিসেম্বরে এ রুটের কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

শনিবার সকালে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে রেললাইন স্থাপনের কাজ উদ্বোধন শেষে একথা জানান তিনি।

এ সময় রেলমন্ত্রী বলেন, নতুন এ রুটে ৬টি ট্রেন চলবে। শিগগির দুইপাশ থেকে শুরু হবে মূল কাজ। প্রতিরাতে ৫০ মিটার অংশের কাজ শেষ করার লক্ষ্য রয়েছে বলেও জানান রেলমন্ত্রী।

এদিকে, উদ্বোধনের পর শুরু হয়েছে পাথরবিহীন ট্র্যাক বসানোর কাজ। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, লাইন বসানোর কাজ চললেও সেতুতে যান চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। মূল সেতুর ৬ দশমিক এক পাঁচ কিলোমিটার অংশে রেললাইন স্থাপনে সময় লাগতে পারে ছয় মাস।

আগামী বছর জুনে পদ্মা সেতুতে ট্রেন চলাচলের লক্ষ্য সামনে রেখে কাজ চলছে বলেও জানান সংশ্লিষ্টরা। এরইমধ্যে ঢাকা-মাওয়া রেল লাইনের কাজের অগ্রগতি হয়েছে প্রায় ৬৪ শতাংশ। নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে ১১ টি রেল ব্রিজের। আর ৩৫ টির মধ্যে ২৭ টি কালভার্টের কাজও শেষ।

এর আগে গত ১৫ জুলাই রেলমন্ত্রী বলেন, ‘পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্প সরকারের ১০টি অগ্রাধিকার প্রকল্পের একটি। এই প্রকল্পের আওতায় ঢাকা থেকে যশোর পর্যন্ত নতুন রেললাইন নির্মাণ করা হবে। ২০২৪ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত প্রকল্পটির মেয়াদ ধরা হয়েছে।’

‘সময়মতো বাস্তবায়নের জন্য প্রকল্পকে ৩ ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটি অংশ ঢাকা থেকে মাওয়া পর্যন্ত, দ্বিতীয় অংশ মাওয়া থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত এবং তৃতীয় অংশ ভাঙ্গা থেকে যশোর পর্যন্ত’ বলে জানান তিনি।

গত ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর দিন থেকে শুরু হয় যান চলাচল।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন