কেএনএফের তৎপরতা নিয়ে সরকার সতর্ক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

26
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

পার্বত্য এলাকায় কেএনএফসহ অন্যান্য বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের জঙ্গিদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

রোববার (১৬ অক্টোবর) রাজধানীর বঙ্গবাজারে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

কেএনএফের সঙ্গে বাংলাদেশের জঙ্গিদের সংশ্লিষ্টতা আছে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার বিষয়গুলো আমরা দেখছি। যদি সংশ্লিষ্টতা পাই, সে বিষয়ে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা ধারণা করছি যে, জঙ্গিরা ওখানে গিয়েছিলো। তারা কেএনএফের ক্যাম্পের পাশাপাশি অবস্থান করছিলো। আমরা এ ঘটনাগুলো দেখছি এবং কয়েকজনকে শনাক্ত করেছি।’

রোববার (১৬ অক্টোবর) ‘ভূখণ্ড বিচ্ছিন্নে কুকিদের নীলনকশা’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সময়ের আলো। এতে বলা হয়, কেএনএফ বাংলাদেশের ভূখণ্ড বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সংগঠনটি নিজেদের মতো করে মানচিত্র বানিয়েছে। তারা আলাদা রাজ্য বা রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য পাহাড়ের বিভিন্ন নৃগোষ্ঠীর নারী-পুরুষের সমন্বয়ে গড়েছে প্রশিক্ষিত বাহিনী।

এমন বাস্তবতায় পার্বত্য এলাকায় কেএনএফের তৎপরতা নিয়ে সরকারের পর্যবেক্ষণ জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘কেএনএফসহ আরও কয়েকটি বাহিনী রয়েছে, আপনারা জানেন। এরা সবসময়ই আমাদের সীমান্ত এলাকায় একটা অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্য প্রয়াস চালাচ্ছে। আমাদের সেনাবাহিনী থেকে শুরু করে আমাদের পুলিশ পর্যন্ত পার্বত্য চট্টগ্রামের তিনটি জেলাতেই রয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যখনই যা প্রয়োজন, আমাদের পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, প্রয়োজনে সেনাবাহিনীও সেখানে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। বিচ্ছিন্নতাবাদীদের আমরা আমাদের এলাকায় থাকতে দিচ্ছি না, তাদের সরিয়ে দেয়া হচ্ছে’।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন