অবশেষে খেরসনে উড়ছে ইউক্রেনের পতাকা

7
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

খেরসন থেকে রাশিয়ার সেনা প্রত্যাহারের পর আবারও সেখানে ইউক্রেনের পতাকা উড়তে দেখা গেছে। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, রাশিয়া তাদের সেনা সরিয়ে নেয়ার ঘোষণার পর খেরসনের আঞ্চলিক প্রশাসনিক ভবনে ইউক্রেইনের পতাকা ওড়ানো হয়। এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খেরসনের বিভিন্ন স্থানে ইউক্রেনের পতাকা ওড়ানোর ছবি পাওয়া গেছে।

ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপদেষ্টা ইউরি সাক বিবিসিকে বলেছেন, খেরসন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে। ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী খেরসনে প্রবেশ করেছে। এখন পর্যন্ত আমরা রিপোর্ট পেয়েছি যে রাশিয়ান বাহিনী খেরসন থেকে পিছু হটেছে এবং প্রশাসনিক ভবনের ওপরে ইউক্রেনের পতাকা উড়ানোর বিভিন্ন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখেছি।

ইউরি সাক বিবিসিকে আরও বলেছেন, খেরসনে এখন কিছু রুশ সৈন্য অবশিষ্ট আছে। তারা তাদের সামরিক ইউনিফর্ম খুলে ফেলছে। সেগুলো আবর্জনায় ফেলে দিচ্ছে এবং স্থানীয়দের সঙ্গে মিশে যাওয়ার চেষ্টা করছে। আমরা তাদের আত্মসমর্পণ করতে, তাদের জীবন বাঁচাতে আহ্বান জানাচ্ছি। সাক আরও বলেছেন, যে ইউক্রেনের পক্ষে এখনই সন্তুষ্ট হওয়া সম্ভব নয়। কারণ যুদ্ধ শেষ হয়নি।

এর আগে অধিকৃত খেরসন থেকে রুশ সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন হয়েছে বলে জানায় রাশিয়া। শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, খেরসনের দক্ষিণাঞ্চলে দেনিপ্রো নদীর পশ্চিম তীর ও খেরসন শহর থেকে সব সেনা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

ক্রেমলিনের বরাত দিয়ে রুশ সংবাদ সংস্থা তাস জানায়, রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বলেছে, খেরসনে মোতায়েন সকল রুশ সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম দেনিপ্রো নদীর পশ্চিম পাড় থেকে পূর্ব পাড়ে নিয়ে আসা হয়েছে। শুক্রবার সকাল হওয়ার আগেই সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন হয়েছে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন