ভিক্ষাবৃত্তি নিরুৎসাহিত করতে মোবাইল কোর্ট

14
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

সংসদ প্রতিবেদক
ভিক্ষাবৃত্তি নিরুৎসাহিত করতে ঢাকায় নিয়মিতভাবে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ। বৃহস্পতিবার সংসদ অধিবেশনে আওয়ামী লীগের সদস্য মো. শফিউল ইসলামের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে মন্ত্রী একথা জানান। মন্ত্রী বলেন, সরকার ভিক্ষাবৃত্তি নিবৃত্ত করার নিমিত্তে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সমাজসেবা অধিদফতর কর্তৃক ‘ভিক্ষাবৃত্তিতে নিয়োজিত জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসন বিকল্প কর্মসংস্থান’ কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে ভিক্ষুক পুনর্বাসনের জন্য জেলা প্রশাসকদের পরিচালিত নির্ধারিত কমিটির কাছে অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ভিক্ষুকদের নিজ নিজ এলাকায় উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে বিকল্প কর্মসংস্থান হিসেবে ক্ষুদ্র ব্যবসা যেমন: দোকান, হাঁস-মুরগি পালন ও রিকশা ইত্যাদির ব্যবস্থা করে তাদের সমাজের মূল স্রোতধারায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা শহরের ভাসমান ভিক্ষুকদের নিজ এলাকায় পুনর্বাসিত হওয়ার জন্য ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে এবং ভিক্ষাবৃত্তি নিরুৎসাহিত করার জন্য ঢাকা শহরে নিয়মিতভাবে মোবাইল কোর্ট (ভ্রাম্যমাণ আদালত) পরিচালনা করা হচ্ছে। মন্ত্রী বলেন, মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আটককৃত ভিক্ষুকদের আশ্রয় দেওয়ার লক্ষ্যে ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ ও ময়মনসিংহ জেলায় সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে ১৬টি টিনশেড বিল্ডিং নির্মাণের কাজ চলমান আছে। আটক কর্মক্ষম ভিক্ষুকদের যথোপযুক্ত ট্রেডভিত্তিক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রশিক্ষিত করে সমাজে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন