যেকোনো সংকটে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপের সুযোগ আছে: সাহাবুদ্দিন চুপ্পু

133
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

সাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা কম হলেও জাতির যেকোনো সংকটে হস্তক্ষেপ করার সুযোগ আছে বলে মনে করেন দেশের নবনির্বাচিত ২২তম রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন চুপ্পু।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দেশের ২২তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর সোমবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) একাধিক গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন মো. সাহাবুদ্দিন।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের সময় কোনো সংকট তৈরি হলে, সংকট ম্যানেজার হিসেবে রাষ্ট্রপতিকে এগিয়ে আসতে হয়। যদি সেরকম পরিস্থিতি হয়, তখন রাষ্ট্রপতি সেখানে হস্তক্ষেপ করতে পারে। কাজেই রাষ্ট্রপতির যে কোনো দায়িত্ব নেই সেটা ভুল, রাষ্ট্রপতি ঐক্যের প্রতীক। সেই প্রতীক হিসেবে রাষ্ট্রপতি তার দায়িত্ব পালন করে সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে।’

নবনির্বাচিত রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, ‘প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন যেন না হয়, কোনোরকম হস্তক্ষেপ যেন না হয়, আর প্রশাসন যেন তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে সেটা দেখেন রাষ্ট্রপতি। জনগণ যাদেরকে পছন্দ করবে তাদেরই ভোট দেবে, আর ভোটে যারা জিতবে আমি তাদেরকে দলমত নির্বিশেষে কাজ করার আহ্বান জানাবো।’

এসময় আগামী নির্বাচনে দেশের সব দল অংশ নেবে বলে আশা প্রকাশ করেন মো.সাহাবুদ্দিন।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়া বিষয়ে তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার নাম রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রস্তাবের কথা গণভবনে ডেকে তাকে জানালে তাৎক্ষণিকভাবে কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েছিলেন।

মো. সাহাবুদ্দিন বলেন, ‘আমাকে প্রধানমন্ত্রী হাসতে হাসতে চেয়ারে বসতে বলেন। এরপর আমাকে বলেন এখানে সাইন করতে হবে। আমি কোনো আঁচ করতে পারিনি এবং আমাকে আঁচ করার কোনো সুযোগ দেয়া হয়নি।’

এদিকে বঙ্গভবনে ওঠার আগে গুলশানের বাসায় থাকবেন মো. সাহাবুদ্দিন। সেকারণে গুলশানের বাসভবনের সামনে বাড়ানো হয়েছে পুলিশি প্রহরা।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন