সুদের হার বাড়ালে বিনিয়োগ কমে যেতে পারে: এফবিসিসিআই

330
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

সুদের হার বাড়ালে মূল্যস্ফীতি কমবে এমন নিশ্চয়তা নেই। উল্টো বিনিয়োগ কমে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন এফবিসিসিআইএর সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। তিনি বলেন, কিছু সমস্যা থাকলেও বাংলাদেশ এখন বিনিয়োগের জন্য পুরোপুরি প্রস্তত। শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

তিনি জানান, এফবিসিসিআইয়ের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী বাংলাদেশ বিজনেস সামিটের আয়োজন করতে যাচ্ছে সংগঠনটি। আগামী ১১-১৩ মার্চ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সামিটের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্মেলনে ১২টি দেশের শীর্ষ পর্যায়ের মন্ত্রী, বিভিন্ন বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহীসহ নানা স্তরের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা অংশ নিবেন।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, স্বাধীনতার পর আমাদের অর্থনীতির সঙ্গে আজকের অর্থনীতির অনেক পার্থক্য রয়েছে। বর্তমানে আমাদের অর্থনীতির আকার ৪৭০ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। আমাদের অর্থনীতির গতিকে আরও তরান্বিত করতে এই সামিটের আয়োজন। যার মাধ্যমে আমাদের দেশের বিনিয়োগ ও বাণিজ্য সম্ভাবনাকে বিশ্বের কাছে তুলে ধরা যায়।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এফবিসিসিআইএর সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, বর্তমান শিল্প বিকাশে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সমস্যা একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এতে আমাদের কোনো হাত নেই। তবে একসঙ্গে বিদ্যুতের দাম এতো বাড়ানোয় ব্যবসায়ীদের ওপর কিছুটা হলেও চাপ পড়েছে। এটা যদি ধাপে ধাপে বাড়তো তাহলে আমাদের ওপর এতোটা প্রভাব পড়তো না। বৈশ্বিক কারণে যেভাবে দাম বেড়েছে আগামীতে আন্তর্জাতিক ভাবে দাম কমলে তেমনি আমাদের দেশেও দাম কমবে সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের এ বিষয়ে আশ্বস্ত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সরকার টেকসই শিল্পায়নের লক্ষ্যে দেশে ১০০টি শিল্প বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করেছে। বেসরকারি বিনিয়োগ আকর্ষণে অবকাঠামো উন্নয়ন করছে। অর্থনীতিকে আরও এগিয়ে নিতে সরকার ‘বিজনেস ফ্যাসিলিটেশন’ কে গুরুত্ব দিচ্ছে। সুতরাং এখনই সময় বাংলাদেশকে ব্র্যান্ডিং করার। এখনই সময় ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির পথে যাত্রাকে ত্বরানিত করার।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন