বেশিরভাগ সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার

494
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

ভাষা আন্দোলনের ৭১ বছরেও সরকারি তালিকাভূক্ত বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার। তবে সাত দশক পর এবার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণ করতে শিগগিরই সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোতে চিঠি পাঠানোর কথা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউট।

বাঙালি জাতীয়তাবাদের মূল ভিত্তি বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন। স্বাধীন বংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পেছনে সেই আন্দোলনের গুরুত্ব অনস্বীকার্য। আর সেই ভাষা আন্দোলনের নেতৃত্বে ছিল ছাত্রসমাজ।

মাতৃভাষা বাংলা রক্ষায় যারা শহীদ হয়েছেন তাদের স্মরণে এখনো অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার। ব্যানবেইসের তথ্য বলছে, সরকারের তালিকাভুক্ত ১৮ হাজার ৮৭৬ স্কুলের মধ্যে শহীদ মিনার আছে ১০ হাজার ৮৭৬ প্রতিষ্ঠানে। স্কুল এন্ড কলেজ ১ হাজার ৪২০ টির মধ্যে শহীদ মিনার আছে ১ হাজার ৫১ টিতে। ৩ হাজার ৩০৯ কলেজের মধ্যে ১ হাজার ৯২৪টিতে আছে শহীদ মিনার। আর ৯ হাজার ২৯১ মাদরাসার মধ্যে শহীদ মিনার আছে মাত্র ১ হাজার ২৫৬ টিতে। এদিকে ৬৫ হাজার ৬০২ প্রথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে শহীদ মিনার আছে প্রায় ২০ হাজার প্রতিষ্ঠানে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার তৈরিতে সরকারী বাধ্যবাধকতা না থাকায় এমন পরিস্থিতি বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। বিভিন্ন সময় উদ্যোগ নিলেও নানা কারণে তা আটকে গেছে বলে স্বীকার শিক্ষামন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি।

এতো দিনেও সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার না থাকা সবার জন্য লজ্জার, বলছেন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউটের মহা পরিচালক হাকিম আরিফ।

সরকারী বেসরকারী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে ভাষা শহীদদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ তৈরীর তাগিদ বিশিষ্টজনদের।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন