অগ্নিসন্ত্রাসের হোতা বিএনপিকে ক্ষমতায় আসতে দেয়া হবে না: কাদের

123
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি হলো অগ্নিসন্ত্রাসের মূল হোতা। তাদের আর ক্ষমতায় আসতে দেয়া যাবে না।

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় আওয়ামী লীগের জনসভায় তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গিবাদের বিশ্বস্ত ঠিকানা বিএনপি। তারা আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মারে, স্কুল পুড়িয়ে দেয়। এই আগুনসন্ত্রাসের মূল হোতাদের আর ক্ষমতায় আসতে দেয়া হবে না।’

‘বিএনপি ক্ষমতায় গেলে মুক্তিযোদ্ধাদের রাজাকার বানাবে। রাজাকারদের মুক্তিযোদ্ধা বানাবে। রাজাকারদের স্বাধীনতা, একুশে পদক দেবে। নারীদের অবস্থা হবে আফগানিস্তানের মতো। ইউনিভার্সিটিতে পড়া হবে না। নারীদের চাকরি হবে না। বোরকা পরে ঘরের কোনায় বসে থাকতে হবে। কারণ বিএনপি যাদের সাথে রাজনীতি করে তারা বাংলাদেশকে আফগানিস্তান বানাতে চায়,’ বলেন ওবায়দুল কাদের।

সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিএনপিকে প্রতিহত করতে হবে। এরা স্বাধীনতার শত্রু। জয় বাংলার শত্রু। ১৬ ডিসেম্বরের শত্রু। এরা ক্ষমতায় এলে জয় বাংলা নিষিদ্ধ হবে। ৭ মার্চ নিষিদ্ধ হবে।’

বিএনপি পথ হারিয়ে এখন দিশেহারা মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘তারা এখন পদযাত্রায় নেমেছে। পতন যাত্রা শুরু হয়েছে বিএনপির। তাদের আর সহ্য হয় না। তারা শেখ হাসিনাকে সহ্য করতে পারে না। কারণ পদ্মা সেতুর কথা শুনলে, পদ্মা সেতু দেখলে তাদের গায়ে জ্বালা ধরে। মেট্রোরেল দেখলে তাদের জ্বলে। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেখলে তাদের জ্বালা করে। তারা অন্তর্জ্বালায় ভুগছে।’

কাদের বলেন, ‘আপনারা প্রস্তুত আছেন। খেলা হবে। খেলা হবে আন্দোলনে। নির্বাচনেও হবে। নৌকা চলবে ভাসিয়া, ভোট দেবেন হাসিয়া। সবাই তৈরি হয়ে যান। আন্দোলনের খেলায় তারা পারবে না। তারা হেরে গেছে। নির্বাচনে না এলে তাদের অস্তিত্ব টিকবে না। আমরা প্রস্তুত, পাল্টাপাল্টি না, আমাদের কর্মসূচি নির্বাচন পর্যন্ত সকল জেলা, উপজেলা, থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে চলবে। শেখ হাসিনা ডাকলেই চলে আসবেন,’ যোগ করেন কাদের।

তিনি বলেন, ‘মনে রাখবেন আন্দোলন করতে জনগণ লাগে। বিএনপির সাথে জনগণ নেই। তাদের সাথে অগ্নিসন্ত্রাস আছে, পেট্রোল বোমা আছে, ককটেল আছে, লাঠি আছে। এই অপশক্তি সুযোগ পেলে আবারও ভয়ংকর কাণ্ড ঘটাবে।’

শেয়ার করতে ক্লিক করুন