বিস্ফোরণ হওয়া ভবনের দুই নকশা, আসল-নকলে গোলকধাঁধায় রাজউক

289
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

গুলিস্তানের কাছে সিদ্দিকবাজারের কুইন্স টাওয়ারের মূল নকশা এখনও খুঁজে পায়নি রাজউক। চার দিন পার হয়ে গেলেও রাজউক নিশ্চিত করে বলতে পারছে না ভবনটির আদৌ কত তলা পর্যন্ত অনুমোদন আছে।

সংস্থাটির কর্মকর্তারা বলছেন, বৃহস্পতিবার রাত ৯টা পর্যন্ত রাজউকের প্রধান কার্যালয়ে তল্লাশি করেও এ সংক্রান্ত কোনো নথি পাওয়া যায়নি।

এদিকে ভবনের মালিকপক্ষ থেকে দুটি নথি সরবরাহ করা হয়েছে। এর মধ্যে একটি নকশায় পাঁচতলা পর্যন্ত অনুমোদন আছে। যেটি রাজউকের তালিকায় লিপিবদ্ধ আছে। ওই নকশা অনুযায়ী ভবনের ওপরের দুই তলা অনুমোদনহীনভাবে করা হয়েছে।

অপর একটি নথিতে দেখা যায়, ভবনটির নকশা করা আছে ১০ তলা। কিন্তু সেটিতে রাজউকের কোনো অনুমোদননেই, রাজউকের সার্ভারেও তার কোনো তথ্য নেই।

রাজউক বলছে, পাঁচতলা ভবনের নকশার যে নথি আছে তাতে তারিখ অস্পষ্ট, তবে সাল ১৯৮৩ লেখা, রাজউকের কর্মকর্তার সিল ও স্বাক্ষর আছে। একটা স্মারক নম্বরও উল্লেখ আছে। আর ১০ তলার নকশার যে নথি দেখানো হয়েছে, তাতে রাজউকের কোনো সিল বা কারো স্বাক্ষর নেই।

পরে ভবনটির নকশা পরিবর্তন করা হয়েছে কি না, তা-ও নিশ্চিত করে বলতে পারেননি রাজউকের সদস্য (উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ) তন্ময় দাশ।

এদিকে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল তাদের প্রাথমিক অনুসন্ধানে বলছে, যে ভবনটিতে বিস্ফোরণ ঘটে তার নাম কুইন স্যানিটারি মার্কেট। একটা সময় এর নাম ছিল কুইন ক্যাফে। ১৯৯২ সাল পর্যন্ত বেজমেন্ট ও নিচতলা পর্যন্ত ছিল। ২০০৪ সালে ভবনটির সাততলা পর্যন্ত পরিপূর্ণ করা হয়।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন