ডিএমপি কমিশনারের সাথে বৈঠক শেষে যা বলল বিএনপি

430
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুকের সঙ্গে বৈঠক করেছে বিএনপির প্রতিনিধি দল। বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) বেলা ১১টায় বিএনপি প্রতিনিধি দল বৈঠক করতে ডিএমপিতে যায়। বৈঠকে বিএনপির পাঁচ প্রতিনিধি দলে ছিলেন বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহবায়ক আমানউল্লাহ আমান, দক্ষিনের আহবায়ক আব্দুস সালাম, সদস্য সচিব আমিনুল হক ও রফিকুল আলম মজনু। প্রায় ৪০ মিনিট বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপি নেতারা।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম বলেন, আজকের বৈঠকে আমরা ঢাকা মহানগরে আমাদের নেতাকর্মীদের বাসায় গিয়ে গিয়ে পুলিশী হয়রানি ও গ্রেফতার করা হচ্ছে। এ বিষয়গুলো ডিএমপি কমিশনারকে অবহিত করার পাশাপাশি বিষয়টা জানা, যে কি কারণে গ্রেফতার হচ্ছে? এ বিষয়ে আলোচনা করেছি।

তিনি বলেন , বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল, বিএনপি আন্ডারগ্রাউন্ড পার্টি না, যে বিএনপির কোন বাড়িতে বা কোন রেস্টুরেন্টে কোন সভা করতে পারবে না। সে দলতো বিএনপি না। বিএনপি বাংলাদেশের সর্ব বৃহত্তম রাজনৈতিক ও গণতান্ত্রিক দল। এটা আমরা ডিএমপি কমিশনারকে অবহিত করেছি। এভাবে যেন গ্রেপ্তার করা না হয়। পাশাপাশি আমরা যেটা বলেছি গ্রেপ্তার করার পর সরকার মহল থেকে বলা হয় তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ছিল। সম্পূর্ণ এটা সত্য কথা না।
বিএনপির এই বলেন, দেখা গেছে ইতোমধ্যে আমাদের যে নেতা কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তারা সবাই জামিনে আছে। যে সমস্ত মামলা সরকার অবৈধভাবে অন্যায়ভাবে দিয়েছে, তারপরও সেগুলো মামলার হাইকোর্ট ও জজকোর্ট থেকে জামিন নেওয়া হয়েছে।

আব্দুস সালাম বলেন, সরকার গণতন্ত্রের কথা বলছে, রাজনৈতিক সুযোগ-সুবিধার কথা বলছে। আর এখন নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপিকে কাবু করার জন্য, বিএনপিকে ঘরে ঢুকানোর জন্য, তারা বিএনপি নেতা, সংগঠককে বেছে বেছে, ছাত্রদল, যুবদল , স্বেচ্ছাসেবক দল, শ্রমিক দলসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করবে এটা হতে পারে না। এটার আমরা প্রতিবাদ করেছি।

তিনি বলেন, আমরা নির্বিঘ্নে ইফতার মাহফিলগুলো করতে চাই। এ ব্যাপারে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে যতটুকু পুলিশের সহযোগিতা দরকার। সেই সহযোগিতা আমরা চাই। কোথাও যাতে অন্যায়ভাবে কোন গ্রেফতার না হয়, সে ব্যাপারে ডিএমপি কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি। আমরা তার কাছ থেকে নিরপেক্ষ আচরণ আশা করি, সেটা তাকে বলেছি।

ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান বলেন, ডিএমপি কমিশনার সাহেব খুব আন্তরিকতার সহকারে বলেছেন, আপনারা আমাদের অবহিত করবেন। কোন সমস্যা হবে না। সেটা তিনি দেখবেন। এবং গ্রেফতারের ব্যাপারেও বলেছেন, আমরা শুনেছি, জেনেছি। আমরা এ ব্যাপারে দেখব ভবিষ্যতে যেন এমন না হয়। সেটাও তিনি বলেছেন।

তিনি বলেন, সার্বিক ব্যাপারে আমরা সব তুলে ধরেছি। ডিএমপি কমিশনার আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছেন। এ বিষয়গুলো তিনি দেখবেন এবং দেখার ব্যবস্থা করবেন।##

শেয়ার করতে ক্লিক করুন