পিডব্লিউডির প্রধান প্রকৌশলীর অপসারণ দাবি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতির

27
শেয়ার করতে ক্লিক করুন

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বাংলাদেশ পিডব্লিউডি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমিনুল ইসলামকে হত্যার উদ্দেশ্যে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সরকারী গাড়ী দিয়ে চাপা দেয়ার প্রতিবাদে সমিতির ঢাকাস্থ সদস্য প্রকৌশলীগণ জরুরী সাধারণ সভায় মিলিত হয়ে এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন।

বৃহস্পতিবার জরুরি সভা শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি সমিতির অফিস থেকে শুরু হয়ে পূর্ত ভবন চত্বর প্রদক্ষিণ করে পূণরায় সমিতি অফিসে এসে শেষ হয়।

প্রতিবাদ সভায় গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলীর ইচ্ছাকৃত এ হীন হত্যা চেষ্টার বিচার দাবী করা হয় এবং প্রধান প্রকৌশলী শামীম আকতারের অপসারণ দাবী করা হয়।

সমিতির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় গত ১৫ মে রাত আনুমানিক রাত ৭ টায় সমিতির পেশাগত বিষয় নিয়ে প্রধান প্রকৌশলী কর্তৃক আহ্বানকৃত ও পূর্বনির্ধারিত আলোচনা সভা সমাপ্ত না করে এবং কোনরকম সিদ্ধান্ত ব্যতিরেকেই প্রধান প্রকৌশলী সভাস্থল ও অফিসকক্ষ ত্যাগ করেন। পূর্ত ভবনের নীচে দাঁড়িয়ে থাকা সমিতির নেতৃবৃন্দকে দেখেও গাড়ী না থামিয়ে নেতৃবৃন্দের উপর দিয়েই গাড়ী চালিয়ে যান, দ্রুত সরতে গিয়ে সাধারণ সম্পাদকসহ সমিতির একাধিক নেতা গাড়ীর ধাক্কায় আহত হন। পরবর্তীতে সাধারণ সম্মাদক মোঃ আমিনুল ইসলামের পায়ে তীব্র ব্যাথা অনুভূত হলে দ্রুত তাকে বাংলাদেশ অর্থোপেডিক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তারগণ পায়ের এক্স-রে করে প্লাষ্টার করে দেন এবং ১৪ দিন বেডরেষ্ট এর পরামর্শ প্রদান করেন।

সমিতির জরুরী সভায় বক্তব্য রাখেন সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ রায়হান মিয়া, সহ সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মোঃ মনিরুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ইউনুছসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও সদস্য প্রকৌশলীগণ।

সমাপনী বক্তব্যে সমিতির সভাপতি বলেন- কেন্দ্রীয় পরিষদের সভার সিদ্ধান্ত গ্রহন করে আন্দোলনের পরবর্তী কর্মসূচী গ্রহন করা হবে। আইনী প্রক্রিয়াসহ দেশব্যাপি আন্দোলনের কঠোর কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে।

শেয়ার করতে ক্লিক করুন